Logo
Notice :
Welcome To Our Website...
কারা সিঁথির করোনাকালের অতিথি

কারা সিঁথির করোনাকালের অতিথি

নিউজ বার্তা পরিবেশক // করোনাকালে বাড়িতে অতিথি! এই প্রশ্ন করার সুযোগ দেননি সিঁথি সাহা। আগেই জানিয়েছেন, অতিথিরা নিজ বাড়িতেই থাকবেন, তিনি তাঁর বাড়িতে। কেবল অনলাইনে তাঁর অতিথি হয়ে উপস্থিত হবেন দুই বাংলার সংগীতাঙ্গনের তারকারা। ‘সিঁথির অতিথি’ নামে ধারাবাহিক এই অনুষ্ঠান শুরু হতে যাচ্ছে মাছরাঙা টেলিভিশনে।

আজ সিঁথির গান শোনানোর দিন। প্রথম আলোর করোনাকালের আয়োজন ‘ঘরে বসে শোনাব গান’ অনুষ্ঠানে গাইবেন তিনি। আজ রাত ১০টা ৩০ মিনিটে প্রথম আলোর ফেসবুক লাইভে উপভোগ করা যাবে তাঁর গান। সিঁথি আজ শোনাবেন ‘তুমি নির্মল কর’, ‘তোমায় হৃদমাঝারে রাখিব’, ‘আঙুল ছুঁয়েছে আঙুল’, ‘তোমার চন্দনা মরে গেছে’ ও ‘মনবালিকা’ গানগুলো। সিঁথি বলেন, ‘যেহেতু সময়টা ভালো নয়, তাই শুরুতে রজনীকান্ত সেনের প্রার্থনার গান রেখেছি। এ ছাড়া গাইব আমার নিজের দুটি, মিতালী মুখার্জির একটি ও একটি ফোক গান।’

লকডাউনের শুরুতে বেশ খুশি হয়েছিলেন সিঁথি। ব্যস্ততায় ঠিকঠাক বিশ্রাম করাও হতো না এত দিন। করোনায় ঘরবন্দী হওয়ার শুরুর সময়টা বেশ কেটেছে তাঁর। রান্না, ছোট ভাইয়ের সঙ্গে গান, সিনেমা দেখা, ছবি আঁকা, বিশ্রাম—সবই হয়েছে। কিন্তু এখন হাঁপিয়ে উঠেছেন তিনি। করোনার এই সময়ে অনুষ্ঠান করা প্রসঙ্গে সিঁথি বলেন, ‘অস্বাভাবিক এই সময়কে মানুষ এখন স্বাভাবিকভাবে নিয়েছে। অফিস-আদালত খুলে গেছে। আমরা শিল্পীরাও কিছু কিছু করে ঘরে-বাইরে গান করা শুরু করেছি। ঘরে বসে মাছরাঙা টেলিভিশনের জন্য সংগীতশিল্পীদের নিয়ে একটি বিশেষ অনুষ্ঠান শুরু করেছি। এটি আমার জন্য নতুন অভিজ্ঞতা।’


নিজের পরিকল্পনায় অনুষ্ঠানটি নিজেই উপস্থাপন করবেন তিনি। তাঁর বাসাতেই বসেছে অনুষ্ঠানের সেট। নিজ নিজ ঘরে বসে ভিডিওতে দেশ-বিদেশের একজন শিল্পী প্রতি পর্বে অংশ নেবেন অনুষ্ঠানটিতে। তাঁদের সঙ্গে আড্ডা দেবেন সিঁথি, তাঁরা শোনাবেন গান। অনুষ্ঠানটি শুরু হবে বাপ্পা মজুমদারকে নিয়ে। আগামীকাল শনিবার থেকে মাছরাঙা টেলিভিশনে দেখা যাবে অনুষ্ঠানটি। সপ্তাহে এক দিন করে রাত ১১টায় দেখা যাবে নতুন একজন অতিথিকে। সিঁথির অতিথি হয়ে এ আয়োজনে আরও আসবেন ভারতের রাঘব চট্টোপাধ্যায়, শুভমিতা, ইন্দ্রদীপ দাসগুপ্ত, অরিন্দম চট্টোপাধ্যায়, প্রসেনজিৎ ঘোষাল। বাংলাদেশ থেকে অতিথি হবেন তাহসান খান, কনা, ইমরান মাহমুদুল, প্রীতম হাসান প্রমুখ।

করোনার আগে বেশ কিছু নতুন গান করেছিলেন সিঁথি, যেগুলো আটকে দিয়েছে করোনাভাইরাস। তিনি বলেন, ‘পাকিস্তানি শিল্পী শাফকাতের সঙ্গে তিনটি গান করেছিলাম। সবকিছু প্রস্তুত হয়ে আছে। এপ্রিল-মে মাসে বাংলাদেশে এসে সংগীতচিত্রের শুটিং করার কথা ছিল তাঁর। কিন্তু তার আগেই করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ল। তিনি আর আসতে পারলেন না। এখন পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ার জন্য অপেক্ষা করছি।’ শাফকাত ছাড়াও মিনার, ইমরানের সঙ্গে দ্বৈত ও কয়েকটি একক গান রেকর্ড করেছেন সিঁথি। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে গানগুলো প্রকাশিত হবে।

Print Friendly, PDF & Email

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *