Logo
Notice :
Welcome To Our Website...
নেইমারের হাতে পিএসজির স্বপ্নের মশাল

নেইমারের হাতে পিএসজির স্বপ্নের মশাল

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের প্রথম কোয়ার্টার ফাইনালে আজ আতালান্তার মুখোমুখি

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক // গত এক দশকে ফরাসি ফুটবলে একাধিপত্য কায়েম করেছে পিএসজি। কিন্তু কাড়ি কাড়ি পেট্রো ডলার খরচ করেও বহু আরাধ্য চ্যাম্পিয়ন্স লিগ শিরোপার দেখা পায়নি বিশ্বের অন্যতম ধনী ক্লাব। ২০১১ সালে কাতারি মালিকানায় আসার পর কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠাই তাদের সর্বোচ্চ সাফল্য। 

তিন বছর আগে ট্রান্সফার ফি’র বিশ্বরেকর্ড গড়ে বার্সেলোনা থেকে নেইমারকে ভাগিয়ে এনেও লাভ হয়নি। গত দু’বারই নকআউট পর্বে এসে মারাত্মক চোটে পড়েন নেইমার। অসহায় দর্শকের মতো গ্যালারিতে বসে দেখেছেন দলের বিদায়। এবার চোট-দুর্ভাগ্য তাড়া না করায় সেই নেইমারের হাতেই পিএসজির স্বপ্নের মশাল।

শেষ আটের গেরো খোলার সুবর্ণ সুযোগ ফরাসি চ্যাম্পিয়নদের সামনে। পর্তুগালের লিসবনে আজ চ্যাম্পিয়ন্স লিগের প্রথম কোয়ার্টার ফাইনালে ইতালির ক্লাব আতালান্তার মুখোমুখি হবে পিএসজি। করোনার ধাক্কায় চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ তিন রাউন্ড এবার নতুন ফরম্যাটে একই ভেন্যুতে হচ্ছে। ফাইনালের মতো কোয়ার্টার ফাইনাল ও সেমিফাইনালও এক লেগের। অর্থাৎ, তিনটি ম্যাচ জিতলেই চ্যাম্পিয়ন পিএসজি!

সাদা চোখে পিএসজির সঙ্গে কোনো তুলনাই চলে না আতালান্তার। নেইমারের একার আয় আতালান্তার সব খেলোয়াড়ের সমান! পিএসজিতে সব মিলিয়ে ব্রাজিলীয় তারকার বার্ষিক আয় ৩৬ মিলিয়ন ইউরো। সেখানে আতালান্তার গোটা স্কোয়াডের বার্ষিক আয় ৩৩ থেকে ৩৬ মিলিয়ন ইউরোর মধ্যে। কিন্তু ফুটবলে অর্থই শেষ কথা নয়। এ মৌসুমে চোখ ধাঁধানো ফুটবল খেলে সবাইকে চমকে দিয়েছে আতালান্তা। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে এই প্রথম খেলতে এসেই জায়গা করে নিয়েছে কোয়ার্টার ফাইনালে।

সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে এবার তারা ১১৮ গোল করেছে। দলে কোনো মহাতারকা না থাকলেও নিজেদের দিনে পাপু গোমেজ, দুভান জাপাতা, লুইস মুরিয়েলরা যে কোনো প্রতিপক্ষকে গুঁড়িয়ে দিতে পারেন। এজন্যই সেরা ছন্দের নেইমারকে আজ বড্ড প্রয়োজন পিএসজির।

দলের আরেক মহাতারকা কিলিয়ান এমবাপ্পে চোটের সঙ্গে লড়ছেন। শুরুর একাদশে তার খেলার সম্ভাবনাক্ষীণ। মার্কো ভেরাত্তি আগেই ছিটকে গেছেন। নিষেধাজ্ঞার কারণে খেলতে পারবেন না অ্যাঙ্গেল ডি মারিয়া। এমন পরিস্থিতিতে একক নৈপুণ্যে পিএসজিকে সেমিফাইনালে তুলতে পারলে গত দুই মৌসুমের আক্ষেপ হয়তো মুছে যাবে নেইমারের।

Print Friendly, PDF & Email

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *