Logo
Notice :
Welcome To Our Website...
চরফ্যাশনে সবজির বাজার আগুন! ক্রেতাশূণ্য দোকান

চরফ্যাশনে সবজির বাজার আগুন! ক্রেতাশূণ্য দোকান

বাংলাদেশ ক্রাইম // চরফ্যাশনে শাকসবজির দামে এক রকম আগুন লেগেছে। বাজারে আসা সকল প্রকার শাকসবজির দাম নিম্ন ও মধ্যবিত্ত পরিবারের নাগালের বাহিরে। ক্রেতাশূণ্য বাজার। দাম শুনে অবাক সাধারণ ক্রেতা খালি হাতে ফিরতে দেখা গেছে অনেককে। শুক্রবার সকালে চরফ্যাশন সবজির বাজার ঘুরে দেখা যায়, বাজারে আসা ক্রেতাদের মধ্যে নেই স্বস্তি। দাম শুনে যেন নিম্ন ও মধ্যবিত্ত ক্রেতাদের কপালে চিন্তার ভাঁজ। অনেকেই বলছেন আয়ের সাথে মিল করে ডিম আর ডাল ছাড়া উপায় নেই।

সবজি কিনতে আসা রহিমা আফরোজ বলেন, বাজারে প্রায় সব ধরনের শাক-সবজির দাম আকাশচুম্বী। ছোট একটি লাউ কিনলাম ৮০ টাকা দিয়ে। যে লিস্ট নিয়ে বাজারে এসেছি তা আর কেনা হবে না।
সবজি বিক্রেতা জামাল উদ্দিন বলেন, আমরা কি করব ভাই। আড়ৎ থেকে যে দামে কিনা তার চাইতে কেজিপ্রতি ২-৩ টাকা লাভে বিক্রি করতে কষ্ট হয়। আগে যে সকল ক্রেতা ২ থেকে ৩ কেজি করে সবজি কিনেছে তারা এখন আধা কেজি নিয়েছি। এতে করে সারাদিনের বিক্রি শেষে যে লাভ হয় তাতে পরিবার নিয়ে দু’মুঠো ডাল ভাত খাওয়া কষ্টকর হয় পড়েছে।

বাজারে বিভিন্ন দোকান ঘুরে দেখা প্রতি কেজি গাজর ৮৫ টাকা, পেঁপে ৫০টাকা, মুলা ৬০টাকা, মিষ্টি কুমড়া ৪৫টাকা, করলা ৭০টাকা, শসা ৬০টাকা, কাঁকরোল ৬০টাকা, পটল ৬৫টাকা, বেগুন ৬০টাকা, কাঁচা কলা হালি ৫০টাকা, ধুন্দল ৫০টাকা, কাঁচা মরিচ ৩০০টাকা, ঢেঁড়স ৬০টাকা, কচুর গাটি ৫০টাকা, বরবটি ৬৫টাকা বিক্রি হচ্ছে।

সবজির আড়তদার মোঃ রাশেদ জানান, অতিরিক্ত বর্ষা এবং নদীর উজানের পানি ঢুকে অধিকাংশ খামারির ফলন নষ্ট হয়ে যায়। তারমধ্যে যেসকল খামারিদের শাকসবজি হয়েছে সেগুলোও লালমোহন, তজুমদ্দিন, দৌলতখান, বোরহানউদ্দিন, বাংলাবাজার, এমনকি ভোলার পাইকার এসে অতিরিক্ত দাম তুলে নিয়ে যান। সবজির তুলনায় চাহিদা বেশি থাকায় ক্রেতারা অতিরিক্ত দামে কিনতে হচ্ছে।

চরফ্যাশন বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি প্রভাষক মনির উদ্দিন চাষী বলেন, সবজি নষ্ট হয়ে যাওয়া ও উৎপাদন কম হওয়ায় সবজিরমূল্য বেড়েছে।

চরফ্যাশন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুহুল আমীণ বলেন, ইতিপূর্বে বাজার মূল্য বৃদ্ধির অভিযোগে ভ্র্যাম্যমান আদালত বসিয়ে ব্যবসায়ীদের জরিমানা করা হয়েছে। আবারও অভিযান করা হবে।

Print Friendly, PDF & Email

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *