Logo
Notice :
Welcome To Our Website...
বরখাস্ত ইউপি চেয়ারম্যান ইনামুলের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা

বরখাস্ত ইউপি চেয়ারম্যান ইনামুলের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা

বাংলাদেশ ক্রাইম // বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে কটূক্তির অভিযোগে দায়ের করা মানহানির একটি মামলায় ফরিদপুর জেলার আলফাডাঙ্গা থানাধীন গোপালপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান (বরখাস্তকৃত) ইনামুল হাসানের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছেন আদালত। আজ বৃহস্পতিবার ঢাকা মহানগর হাকিম শহিদুল ইসলাম এ পরোয়ানা জারি আদেশ দেন।

দুইদফা সমন পাঠানোর পরও তা জারি হয়ে না আসায় বাদী পক্ষের আবেদনে এ পরোয়ানা জারির আদেশ দিয়েছেন আদালত।

এর আগে গত ৪ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর সেন্টাল ল’ কলেজের আইনের ছাত্র এবং বঙ্গবন্ধু আইন ছাত্র পরিষদের উপ-প্রচার সম্পাদক সৈয়দ রিয়াদ মিয়া আদালতে এ মামলা করেন। ওইদিন আদালত অভিযোগ আমলে নিয়ে ২৬ ফেব্রুয়ারি আসামি ইনামুল হাসানকে আদালতে হাজির হতে সমন জারি করেন।

মামলার অভিযোগে বলা হয়, গত ৮ জানুয়ারি ফরিদপুর জেলার আলফাডাঙ্গা থানাধীন গোপালপুর ইউনিয়নের পাড়াগ্রাম বাজার মোড়ে স্থানীয় কিছু লোক দুস্থদের জন্য সরকার বিনামূল্যে ঘর বরাদ্দ, বয়স্ক, বিধবাদের জন্য ভাতার অনিয়মের বিষয়ে চেয়ারম্যান ইনামুল হাসানকে জবাবদিহিতা করতে বললে তখন সে জনতার উদ্দেশ্যে বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ভোট ডাকাতির মাধ্যমে ক্ষমতায় এসেছেন, তখন ন্যায় কোথায় ছিল, বঙ্গবন্ধুর আদর্শ কোথায় ছিল? শেখ মুজিবুর রহমান তো পকিস্থান ভাঙছে, দুই পাকিস্তান এক থাকলে দেশ আরও সুন্দর হইত। তারে (বঙ্গবন্ধু) নিয়ে লাফালাফির কি আছে? তার (আসামির) বাপ রাজাকার হয়েছে তাতে কি হয়েছে, তোদের শেখ হাসিনা কি তাই বইলা আমার চেয়ারম্যান হওয়া ঠেকাইতে পারছে?’ মর্মে বক্তব্য উপস্থাপন করেন। যা একটি দৈনিক এবং দুইটি অনলাইন নিউজপোর্টালে প্রকাশিত হয়।

জানা গেছে, চেয়ারম্যান ইনামুল হাসান দুর্নীতিসহ বিভিন্ন অভিযোগে সম্প্রতি বরখাস্ত হন।

Print Friendly, PDF & Email

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *