Logo
Notice :
Welcome To Our Website...
পিটিয়ে হত্যার পর পোড়ানোর ঘটনার ছায়া তদন্তে র‍্যাব ও ডিবি

পিটিয়ে হত্যার পর পোড়ানোর ঘটনার ছায়া তদন্তে র‍্যাব ও ডিবি

বাংলাদেশ ক্রাইম // লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার বুড়িমারীতে আবু ইউনুস মো. শহীদুন্নবী জুয়েল (৫০) নামে এক ব্যক্তিকে পিটিয়ে হত্যার পর পুড়িয়ে দেওয়ার ঘটনার তদন্ত ইতোমধ্যে শুরু করেছেন র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন রংপুরে র‍্যাব-১৩ এর সদস্যরা। এ ছাড়া পাশাপাশি কাজ করছেন গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)’র সদস্যরা। গতকাল শুক্রবার র‌্যাব-১৩ এর উপপরিচালক মেজর আব্দুল্লাহ আল মুইন হাসান ও ডিবি’র ওসি ওমর ফারুকের সঙ্গে কথা বলে এসব তথ্য জানা গেছে।

র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন রংপুরে র‍্যাব-১৩ এর উপপরিচালক মেজর আব্দুল্লাহ আল মুইন হাসান বলেন, ‘লালমনিরহাট জেলা প্রশাসন ও পুলিশের অনুরোধে আমাদের একটি দল র‍্যাব-১৩ এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হাফিজুর রহমান হাফিজের নেতৃত্বে কাজ করছে।’

এ বিষয়ে র‍্যাব-১৩ এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হাফিজুর রহমান হাফিজ বলেন, ‘ঘটনার পর বৃহস্পতিবার রাতেই আমরা বুড়িমারীতে অবস্থান করছি। আমরা পৃথক পৃথক দলে টহল জোরদার করেছি। প্রযুক্তিগত বিভিন্ন দিক নিয়ে আমরা ছায়া তদন্ত শুরু করেছি। আমরা যা পাচ্ছি, তা পুলিশ ও জেলা প্রশাসনকে অবহিত করছি। তদন্তের মাধ্যমে কারা, কেন এমন একটি ঘটনা সৃষ্টি করলো, এসব কিছু জানার চেষ্টা চলছে।।’

এদিকে, পিটিয়ে হত্যার পর পুড়িয়ে ছাই করার ঘটনাকে একটি পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড উল্লেখ করে জুয়েলের শ্যালক মিলন হক তালুকদার বলেন, ‘আমরা দুলাভাইকে হত্যার বিচার চাই। এ ঘটনায় আমরা মামলা করব।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমার ভগ্নিপতি যদি কোনো অপরাধ করে থাকে, তাকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে দেওয়া যেতো। কিন্তু তা না করে কেন নিষ্ঠুরভাবে পিটিয়ে হত্যা করে লাশ পুড়িয়ে দেওয়া হলো। ঘটনাটি সভ্য সমাজের কোনো মানুষই সমর্থন করে না।’ তিনি এ ঘটনার ন্যায়বিচার চান।

এদিকে, ঘটনার তদন্তে তিন সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছে। শুক্রবার সকালে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেটকে প্রধান করে কমিটি গঠন করা হয় বলে জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক আবু জাফর।

Print Friendly, PDF & Email

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *