Logo
Notice :
Welcome To Our Website...
দেশে নতুন মাদক ‘আইস’, গ্রেপ্তার ৪

দেশে নতুন মাদক ‘আইস’, গ্রেপ্তার ৪

বাংলাদেশ ক্রাইম // রাজধানীতে অভিযান চালিয়ে মালয়েশিয়া থেকে আমদানিকৃত বিপুল পরিমাণ ‘আইস’ নামের ব্যয়বহুল মাদকদ্রব্যসহ চারজনকে গ্রেপ্তার করেছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) রমনা বিভাগ। গতকাল বুধবার গেন্ডারিয়া, গুলশান, বনানী ও বসুন্ধরা এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। উদ্ধারকৃত মাদক ‘আইস’ নতুন এক ধরনের মাদক বলে জানিয়েছে পুলিশ।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- চন্দন রায়, সিরাজ, অভি, জুয়েল, রুবায়েদ ও ক্যানি। এ সময় তাদের হেফাজত হতে ৬০০ গ্রাম মাদকদ্রব্য ‘আইস’ উদ্ধার করা হয়। আজ বৃহস্পতিবার ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা জানান অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ডিবি) এ কে এম হাফিজ আক্তার।

উদ্ধারকৃত মাদক ‘আইস’ নতুন ধরনের মাদক উল্লেখ করে ডিবির অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার বলেন, এর ক্যামিকাল নাম মেথান ফিটামিন, উৎপত্তিস্থল অস্ট্রেলিয়া, মালয়েশিয়া, সিঙ্গাপুর ও চায়না। সেবু, ক্রিস্টাল ম্যাথ, ডি ম্যাথসহ আইসের আরও নাম রয়েছে। ১০ গ্রাম আইস মাদকের দাম ১ লাখ টাকা। এটি স্নায়ু উত্তেজক ড্রাগ। এটি গ্রহণে হরমোন উত্তেজনা স্বাভাবিক সময়ের চেয়ে হাজারগুণ বৃদ্ধি পায়। তিনটি ফরমেশনে এটি গ্রহণ করা হয়- ধুমপান আকারে, ইনজেক্ট করে ও ট্যাবলেট হিসেবে।

তিনি আরও বলেন, বিদেশ থেকে উচ্চবৃত্তদের জন্য এই ড্রাগ আনা হয়েছে। প্রতিবার মাদকদ্রব্য আইস সেবনে ১০ থেকে ১২ হাজার টাকা খরচ হয়। উচ্চবৃত্ত পরিবারের সন্তানদের টার্গেট করে এদেশে মার্কেট ধরতে বিদেশ থেকে মাদকদ্রব্য আইস আনা হয়েছে বলে গ্রেপ্তারকৃতরা জানায়। দীর্ঘদিন এটি ব্যবহার করলে হৃদরোগ, অঙ্গ-প্রতঙ্গ ড্যামেজ, দাঁত খয়ে যাওয়াসহ ব্রেইন স্ট্রোক হয়।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের বরাত দিয়ে ডিবি জানায়, গ্রেপ্তার চন্দন রায় এই মাদকদ্রব্য আইসের মূল ডিলার। তিনি তার প্রবাসী আত্মীয় শংকর বিশ্বাসের মাধ্যমে বিমানযোগে এগুলো সংগ্রহ করে ঢাকার খুচরা বিক্রেতাদের মাধ্যমে উচ্চবিত্ত্ব শ্রেণির কাছে বিক্রি করেন।

Print Friendly, PDF & Email

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *