Logo
Notice :
Welcome To Our Website...
প্যারোলে মুক্তি পেয়ে মায়ের দাফনে ইরফান

প্যারোলে মুক্তি পেয়ে মায়ের দাফনে ইরফান

বাংলাদেশ ক্রাইম // নৌবাহিনীর কর্মকর্তাকে মারধরের ঘটনায় হাজী সেলিমের ছেলে কারাবন্দি ইরফান সেলিম চার ঘণ্টার জন্য প্যারোলে মুক্তি পেয়ে মায়ের দাফনে অংশ নিয়েছিলেন।

 

সোমবার বিকেলে চকবাজার শাহী মসজিদে মায়ের জানাজায় অংশ নেন ইরফান। পরে আজিমপুর কবরস্থানে দাফন পর্যন্ত তিনি ছিলেন বলে জানান ইরফানের বাবা ঢাকা-৭ আসনের সাংসদ হাজী সেলিমের ব্যক্তিগত সচিব মহীউদ্দীন মাহমুদ বেলাল।

তিনি বলেন, ‘জানাজায় ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি সাধারণ সম্পাদক অংশগ্রহণ করেন।’

ঢাকার জেলার মাহবুবুল আলম জানান, প্যারোলে মুক্তি পেয়ে সোমবার পৌনে ৩টায় ইরফান সেলিম কেরানীগঞ্জ কারাগার থেকে বের হন। সন্ধ্যা ৭টার সময় তাকে আবার ফিরিয়ে আনা হয় কারাগারে।

তিনি আরও বলেন, ‘ইরফানের মায়ের মৃত্যুর পর রোববার রাতেই জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে তার প্যারোলে মুক্তির জন্য আবেদন করা হয়।’

রোববার রাত পৌনে ১২টায় ঢাকার ধানমন্ডি ল্যাবএইড হাসপাতালে ইরফান সেলিমের মা গুলশান আরা সেলিম মারা যান। গুলশান আরা দীর্ঘদিন ডায়াবেটিস, কিডনি, উচ্চ রক্তচাপ ও লিভার সমস্যায় ভুগছিলেন। তিনি অবিভক্ত ঢাকা সিটি করপোরেশনের কমিশনার ছিলেন।

উল্লেখ্য, গত ২৫ অক্টোবর রাতে এমপি হাজী সেলিমের ‘সংসদ সদস্য’ লেখা সরকারি গাড়ি থেকে নেমে নৌবাহিনীর কর্মকর্তা ওয়াসিফ আহমেদ খানকে মারধর করা হয়। রাজধানীর কলাবাগান সিগন্যালের পাশে এ ঘটনা ঘটে। রাতে এ ঘটনায় জিডি হলেও ২৬ অক্টোবর ভোরে হাজী সেলিমের ছেলে ইরফানসহ সাতজনের বিরুদ্ধে মামলা হয়। পরে দুপুরে ইরফানকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব।

ওইদিন পুরান ঢাকার তার বাসায় অভিযানও পরিচালনা করে র‌্যাব। অভিযানে ৩৮টি ওয়াকিটকি, পাঁচটি ভিপিএস সেট, অস্ত্রসহ একটি পিস্তল, একটি একনলা বন্দুক, একটি ব্রিফকেস, একটি হ্যান্ডকাফ, একটি ড্রোন এবং সাত বোতল বিদেশি মদ ও বিয়ার উদ্ধার করা হয়। র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত অবৈধ ওয়াকিটকি রাখার দায়ে ছয় মাস ও বিদেশি মাদক রাখার দায়ে ছয় মাস করে মোট এক বছর করে কারাদণ্ড দেয়া হয় ইরফান সেলিম ও তার দেহরক্ষী জাহিদকে। পরে তাদের কেরানীগঞ্জের ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়।

Print Friendly, PDF & Email

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *