Logo
Notice :
Welcome To Our Website...
বিএনপি ঘোলাপানিতে মাছ শিকারের অপচেষ্টা করছে : কাদের

বিএনপি ঘোলাপানিতে মাছ শিকারের অপচেষ্টা করছে : কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক // বিএনপি দেশে শ্বাসরুদ্ধকর পরিস্থিতি তৈরির মাধ্যমে ঘোলাপানিতে মাছ শিকারের অপচেষ্টা করছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। এ সময় সরকারের নীরবতাকে দুর্বলতা না ভাবতে বিএনপির প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

আজ বৃহস্পতিবার সকালে নোয়াখালী জেলার কবিরহাট উপজেলায় বিভিন্ন প্রকল্পের উদ্বোধন ও ভিত্তিপ্রস্তর এবং অসহায়দের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে সেতুমন্ত্রী একথা বলেন। সরকারি বাসভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে অনুষ্ঠানে যুক্ত ছিলেন তিনি।

অনুষ্ঠানে শেখ হাসিনা সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন ও অর্জনের সাফল্য নেতাকর্মীদের প্রচার করার নির্দেশ দেন ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, ‘দেশে একটি কুচক্রী মহল সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমসহ বিভিন্নভাবে অপপ্রচার চালাচ্ছে, সকলকে ঐক্যবদ্ধ থাকার পাশাপাশি ষড়যন্ত্রকারীদের অপপ্রচারের জবাব দিতে হবে।’

সেতুমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গড়া ডিজিটাল বাংলাদেশের সুযোগ গ্রহণ করে দেশ-বিদেশে বসে বিএনপি ও তার দোসররা কল্পিত কাহিনী প্রচার করছে। সরকারের বিরুদ্ধে বলতে গিয়ে তারা দেশের ইমেজও নষ্ট করছে।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আরও বলেন, ‘যারা এদেশের স্বাধীনতা মনেপ্রাণে এখনো মেনে নিতে পারেনি, তাই বিজয়ের মাসেও তারা অপপ্রচার ও ষড়যন্ত্রে মেতে উঠেছে। তারা ইতিহাসের মীমাংসিত ইস্যু বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যেরও অবমাননা করেছে।’

বিএনপি উগ্র সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠীর পৃষ্ঠপোষক জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘তারা বিজয়ের মাসে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যের অবমাননার মাধ্যমে মুক্তিযুদ্ধ এবং মুক্তিযুদ্ধের অবিনাশী চেতনার বিরুদ্ধে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়েছে। স্বাধীনতার স্বপক্ষের শক্তিকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে এ সকল অপতৎপরতার বিরুদ্ধে সোচ্চার হতে হবে।’

বিএনপির প্রতি কঠোর হুঁশিয়ারি দিয়ে মন্ত্রী বলেন, জনগণের স্বস্তি নষ্টের অপপ্রয়াস চালাবেন না, নির্বাচন ছাড়া ক্ষমতার পালাবদলে আর কোন সাংবিধানিক পথ নেই। এ সময় বিএনপিকে ভোটের কোকিল অবহিত করে কাদের বলেন, তারা রাজনীতি করে নিজেদের জন্য, জনগণের জন্য নয়।

উন্নয়নের ধারাবাহিকতায় কবিরহাট উপজেলায় প্রায় ৫৫টি প্রকল্পের কাজ শেষ হয়েছে,যার উদ্বোধন আজ করা হচ্ছে বলেও জানান সেতুমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘কবিরহাট কলেজের একসঙ্গে সাতটি নতুন ভবন নির্মাণ করা হয়েছে, যা অনেক বড় ঘটনা। নিজ এলাকার জনগণের ভাগ্য উন্নয়ন না করে নিজের ভাগ্য উন্নয়ন করতে চাই না।’ এ সময় জনগণের ভাগ্য উন্নয়নের জন্য রাজনীতি করেন বলেও জানান ওবায়দুল কাদের।

অনুষ্ঠানে আগামী জাতীয় নির্বাচনের আগেই নিজের এলাকার বেকার যুবকদের কর্মসংস্থানের সুযোগ করে দেওয়ার আশ্বাস দেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক। এ সময় কবিরহাট প্রান্তে উপস্থিত ছিলেন- উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নুরুল আমিন রুমি, পৌরসভার মেয়র জহিরুল ইসলাম রায়হানসহ সরকারি-বেসরকারি নেতৃবৃন্দ।

Print Friendly, PDF & Email

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *