Logo
Notice :
Welcome To Our Website...
করোনার ভয়ে বিমানবন্দরে ৩ মাস

করোনার ভয়ে বিমানবন্দরে ৩ মাস

বাংলাদেশ ক্রাইম // বাসায় ফিরলে করোনায় আক্রান্ত হবেন এই ভয়ে আদিত্য উদয় সিং (৩৩) নামে এক ব্যক্তি তিন মাস ধরে যুক্তরাষ্ট্রের শিকাগোতে ও’হেয়ার বিমানবন্দরে অবস্থান করছিলেন। এ সময়ে তিনি ওই বিমানবন্দরের বিভিন্ন লোকজনের কাছ থেকে খাবার সংগ্রহ করতেন। তবে শেষ রক্ষা হয়নি তার। শনিবার সকালে বিমানবন্দরের সংরক্ষিত এলাকায় প্রবেশ এবং প্রায় ৫০০ ডলার চুরির অপরাধে তাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এ খবর দিয়েছে অনলাইন সিএনএন।
এতে আরো বলা হয়, বিমান উড্ডয়ন ও অবতরণের বিচারে বিশ্বের অন্যতম ব্যস্ত বিমানবন্দর ও’হেয়ার। করোনা মহামারির আগে প্রতি বছর এই বিমানবন্দর দিয়ে প্রায় ৮ কোটি ৫০ লাখ যাত্রী আসা-যাওয়া করতেন। ব্যস্ততম এই বিমানবন্দরে ‘কোভিডের কারণে বাড়ি ফিরতে ভীত’ এক ব্যক্তি তিন মাস ধরে বাস করছিলেন।

শিকাগো পুলিশ জানায়, আদিত্য উদয় সিং নামে ওই ব্যক্তিকে শনিবার সকালে নকল পরিচয়ে বিমানবন্দরের সংরক্ষিত এলাকায় প্রবেশ ও অর্থ চুরির অপরাধে গ্রেফতার করা হয়েছে। শিকাগো ট্রিবিউনের রিপোর্টে বলা হয়েছে,  আদিত্যকে আদালতে হাজির করা হলে বিবাদীপক্ষের আইনজীবিরা জানান, তিনি লস অ্যানজেলেস থেকে ১৯ অক্টোবর একটি ফ্লাইটে শিকাগো যান। গ্রেফতার হওয়ার পূর্ব পর্যন্ত তিনি বিমানবন্দরের নিরাপত্তারক্ষীদের এলাকায় লুকিয়ে ছিলেন। ইউনাইটেড এয়ারলাইনসের দুই কর্মকর্তা তার পরিচয় জিজ্ঞেস করলে তিনি যে পরিচয়পত্র দেখান, সেটা ছিল দু’মাস ধরে নিখোঁজ এক কর্মকর্তার।
রাষ্ট্রপক্ষের সহকারি এটর্নি ক্যাথলিন হ্যাগের্টি কোর্টে বলেন, আদিত্য আত্মপক্ষ সমর্থনে জানিয়েছেন- কোভিডের কারণে বাড়ি ফিরতে ভয় পাচ্ছেন তিনি। এই তিন মাস তিনি অন্য যাত্রীদের কাছ থেকে খাবার সংগ্রহ করতেন বলে স্থানীয় পত্রিকায় খবর প্রকাশিত হয়েছে।
আদালতে এ কথা বলা হলে কুক কাউন্টির বিচারক সুজানা ওরটিজ বিস্ময় প্রকাশ করেন। বিষয়টি অনেকের  কাছে হাসির কারণ হয়ে দাঁড়ায়। বিচারক বলেন, আমাকে আবার বুঝান, একজন অজানা ব্যক্তি, যিনি আপনাদের কর্মচারী নন, বিমানবন্দরের সংরক্ষিত এলাকায় ১৯শে অক্টোবর থেকে ১৬ই জানুয়ারি পর্যন্ত অবস্থান করছিলেন।  কিন্তু আপনারা তা বুঝতে পারেন নি? আমি আসলেই ব্যাপারটা বুঝতে চাই।
আদিত্য সিং লস অ্যানজেলেসের অরেঞ্জ কাউন্টির বাসিন্দা। তার কোনো অপরাধের রেকর্ডও নেই বলে শিকাগো ট্রিবিউনকে নিশ্চিত করেন বাদী পক্ষের রাষ্ট্র নিয়োজিত সহকারি এটর্নি কোর্টনি স্মলউড। আদিত্য কখনো আর ও’হেয়ার বিমানবন্দরে প্রবেশ করবেন না- এই শর্তে ১০০০ ডলারের বিনিময়ে জামিন দেয়া হয়েছে। তবে ২৭ জানুয়ারিতে তার আবার হাজিরা দিতে হবে আদালতে।

Print Friendly, PDF & Email

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *